কুরআনের আলোকে রিযিক বৃদ্ধির উপায়

প্রত্যেক মুসলমান বিশ্বাস করে সকল প্রাণীর জীবন-মৃত্যু, রিযিক, ভালো-মন্দ সব কিছুই আল্লাহ তা’য়ালা নির্ধারণ করেন। এমনকি এগুলো সে দুনিয়ায় আগমনের পূর্বে মাতৃগর্ভে থাকাকালীন ফয়সালা হয়ে যায়। আর এগুলো তিনি তার জন্য নির্ধারিত নির্দিষ্ট ‍উপকরণ ও মাধ্যমের সাথে লাভ করে করে থাকেন। সেই উপকরণ হিসেবে গ্রহণ করে বিভিন্ন পেশা। যেমন- চাষাবাদ, ব্যবসা-বাণিজ্য, শিল্প, চাকরী-বাকরী ইত্যাদি। রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ইরশাদ করেন, “নিজ হাতে উপার্জন করা রিযিক সর্বোত্তম রিযিক।” তবে কিছু কিছু মাধ্যম রয়েছে যেগুলোর ওসিলায় আল্লাহ তা’য়ালা রিযিক প্রশস্ত করেন। নিম্নে কুরআনুল কারীমের আলোকে কয়েকটি উল্লেখ করা হল।

এক. তাকওয়া ও তাওয়াক্কুল (খোদাভীতি ও ভরসা করা):

আল্লাহ তা’য়ালা ইরশাদ করেন, و من يتق الله يجعل له مخرجا و يرزقه من حيث لا يحتسب و من يتوكل على الله فهو حسبه إن الله بالغ أمره قد جعل الله لكل شيء قدرا


Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *